অনেক আগের থেকে ভারত কে একটি মহান দেশ বলে জেনে থাকে ।কারন এই দেশে অনেক নিয়ম কানুন তৈরি করা হয়েছে যেটি এই দেশকে আরও মহান করে তুলেছে ।আর তাই এখানে দেশের প্রত্যেকটি নিয়মকে মেনে চলা এই দেশের নাগরিকদের প্রধান ধর্ম ।আর যদি এই দেশের নিয়ন কানুন কেউ ভেঙে থাকে তাঁর উপর কেশ করা হয়ে থাকে ,আর যদি সে দোষী হয়ে থাকে তাকে কঠিন শাস্তিও দেওয়া হয়ে থাকে ।আর এগুলি আপনারা দেখেছন । মাঝে মাঝে ব্যাক্তি এমন কিছু বড় অপরাধ করে বসে যার কারনে তাকে অনেক কঠিন সাজা দেওয়া হয়ে থাকে ।যখন কোন ব্যাক্তি কাউকে খুন করে দেয় তাহলে যদি সেটি প্রমান হয়ে থাকে তাহলে তাকে বেশীরভাগ সময় ফাঁসি সাজা দেওয়া হয়ে থাকে ।কিন্তু আপনারা কি জানেন ফাসিকে নিয়ে ভারত সরকার অনেক আলাদা রকমের নিয়ন কানুন তৈরি করেছে । হ্যাঁ ফাঁসি জন্যে আলাদা রকমের নিয়ম বানানো হয়েছে ।যেমন ফাঁসির দড়ি,ফাসির সময় ,ফাঁসি দেওয়ার প্রক্রিয়া সব কিছু এতে নিয়ম করা আছে ।আর ভারতে যখন কোন অপরাধিকে ফাঁসি দেওয়া হয়ে থাকে তাঁর আগে জল্লাদ তাঁর কানে অনেক কিছু বলে থাকেন ।যেগুলি প্রায় আপনাদের সকলেই অজানা । ফাঁসি দেওয়ার আগে জল্লাদ অপরাধির কানে কিছু বলে থাকেন আর তাঁর পরে থাকে ফাঁসি দেওয়া হয়ে থাকে ।এটি জানার পর আপনাদের যদিও এটি শুনতে আজব লাগবে কিন্তু এটি একদম সত্যি ।আর এবার আপনার মনে একটি প্রশ্ন জাগছে যে জল্লাদ তাঁর কানে কি বলতে পারে আর কেন বা তা বলে থাকে ?

আসলে ফাঁসি দেওয়ার আগে জল্লাদ অপরাধির কাছে ক্ষমা চেয়ে থাকেন ।আর বলে থাকেন – আমাকে ক্ষমা করে দিও,আমি দায়িত্ববদ্ধ ।যদি অপরাধি হিন্দু হয়ে থাকে তাহলে তাঁর কানে রাম রাম বলে থাকেন আর যদি মুস্লিম হয়ে থাকে তাহলে তাঁর কানে অন্তিম সেলাম বলা হয়ে থাকে ।আর বলেন-আমি সরকারের আদেশের গুলাম ,আমার কিছু করার নেই ।

Related Post

Spread the love
  • 2.6K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2.6K
    Shares