বিশ্বের পাসপোর্ট র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশ কত নাম্বারে আছে জানলে অবাক হবেন ।

বিশ্ব পাসপোর্ট র‌্যাংকিংয়ে ভালো অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। ২০১৮ সালের গ্লোবাল পাসপোর্ট পাওয়ার র‌্যাংকে ৮৩ নম্বরে রয়েছে বাংলাদেশিরা। ভিসামুক্ত যাতায়াত, অন-অ্যারাইভাল ভিসা ও ভিসা আবশ্যক— এই তিনটি দিক বিবেচনা করে বাংলাদেশকে রাখা হয়েছে নিচের সারিতে।

বিশ্ব আর্থিক উপদেষ্টা সংস্থা অ্যারটন ক্যাপিটালের পাসপোর্ট ইনডেক্সে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা মাত্র ১৮টি দেশে ভিসা ছাড়া যেতে পারেন। এছাড়া ২৬টি দেশে বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা ব্যবস্থা রয়েছে। আর ১৫৪টি দেশে তারা শুধু পাসপোর্ট থাকলেই যেতে পারেন না, তাতে ভিসাও থাকতে হয়। এই র‌্যাংকিংয়ে সান্ত্বনা শুধু এটুকু— ৮৩ নম্বরে যৌথভাবে থাকলেও বাংলাদেশের নিচে আছে যথাক্রমে লেবানন, ফিলিস্তিন, ইয়েমেন, ইথিওপিয়া, ইরিট্রিয়া ও সুদান। সবার নিচে অর্থাৎ ৮৯ নম্বরে রয়েছে আফগানিস্তান। এছাড়া ৮৮ নম্বরে ইরাক, ৮৭ নম্বরে পাকিস্তান, ৮৬ নম্বরে সিরিয়া, ৮৫ নম্বরে সোমালিয়া ও ৮৪ নম্বরে আছে লিবিয়া। অবশ্য পৃথক পাসপোর্ট পাওয়ার র‌্যাংকে রাখা ১৯৯টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশি পাসপোর্টের অবস্থান ১৮৭ নম্বরে। এই র‌্যাংকিংয়েও যথারীতি সবার ওপরে সিঙ্গাপুর ও সবার নিচে আফগানিস্তান।

এদিকে আরেক সংস্থা হেনলি অ্যান্ড পার্টনার পাসপোর্ট ইনডেক্সে বাংলাদেশের অবস্থান আরও নিচে। এ তালিকায় লেবানন, দক্ষিণ সুদান ও লিবিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে ৯৬ নম্বরে আছে বাংলাদেশের পাসপোর্ট। হেনলি অ্যান্ড পার্টনারের দাবি, বাংলাদেশিরা ভিসা ছাড়া ৪১টি দেশে যেতে পারেন। হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্সের র‌্যাংকিংয়ে ২০১৮ সালে এশিয়ার দেশ সিঙ্গাপুর বিশ্বে সবচেয়ে ক্ষমতাধর পাসপোর্টের স্বীকৃতি পেয়েছে। দেশটির পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়াই ১২৭টি দেশে যেতে পারেন। শান্তিপূর্ণ বাণিজ্যিক শক্তি হিসেবে এই দেশের পরিচিতি দুনিয়াজোড়া।

(Visited 75 times, 2 visits today)

Related Post

You may also like...