বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে একটা বিতর্কিত দল ভারত। সব জায়গায়ি তাদের আধিপত্য। সম্প্রতি ভারতের সুবিধার জন্য এশিয়া কাপের ম্যাচ শিডিউলও বদলানো হয়। এবার বড় একটা ভারতের পক্ষে আম্পয়ারদের পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ উঠল। আর আম্পায়ারদের বিরুদ্ধে এ বড়সড় অভিযোগ তুলেছেন অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ও কিংবদন্তী সাবেক ক্রিকেটার রিকি পন্টিং। তার দাবি, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতীয় বোলাররা নো বল করলে সেটি এড়িয়ে যায় আম্পায়ারদের চোখ। অর্থাৎ,ভারতীয় বোলারদের নো বল দেখেন না আম্পায়াররা!

পন্টিংয়ের অভিযোগ, ভারতীয় বোলারদের নো বল দেখেন না আম্পায়াররা! সরাসরি আম্পায়ারদের বিরুদ্ধে না বললেও পন্টিংয়ের ইঙ্গিত এমনটাই। সম্প্রতি অ্যাডিলেড টেস্টে স্বাগতিক ব্যাটসম্যান অ্যারন ফিঞ্চ ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মার বলে আউট হলেও টিভি রিপ্লেতে ধরা পড়ে, ওভারস্টেপিং করেছিলেন বোলার ইশান্ত। এতে আউটের হাত থেকে বেঁচে যান অস্ট্রেলীয় ওপেনার ফিঞ্চ। কিন্তু পন্টিং সেদিকেই ইঙ্গিত করে বলেছেন, নো বল হয়েছে কি না সেটার জন্য কেন আউট হলেই কেবল টিভি রিপ্লের সাহায্য নিতে হবে!

তার অভিমত, আম্পায়াররা নো বলের ব্যাপারটিকে এখন কম গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন। ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মা পুরো ম্যাচে বেশ কয়েকবার নো বল করলেও তা আম্পায়ারের চোখ এড়িয়ে গেছে বলে দাবি পন্টিংয়ের। আম্পায়াররা উদাসীনতার কারণে বিষয়টি খেয়াল করছেন না বলে মনে করেন এই জনপ্রিয় ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব। তিনি বলেন, ‘আমি অনেক বছর ধরেই এটা বলে আসছি। আমি সত্যিকার অর্থেই মনে করি না যে, আম্পায়াররা এখন আর ফ্রন্ট লাইন দেখছেন। আমরা কয়েকটা বল দেখেছি, তার পা ৪-৬ ইঞ্চি লাইনের বাইরে ছিল। আমার মনে হয় না, আম্পায়াররা এসব দেখছেন। কারণ তারা এটার ব্যাপারে উদাসীন।’

দাগ থেকে পা বহুদূরে- ক্লোজ কল নয় এমন নো বলও আম্পায়ারের চোখ এড়িয়ে যায় বলে ক্ষোভ পন্টিংয়ের। তিনি জানান, ‘আমরা এখন জানি, যদি উইকেট পড়ে তবেই সেটা দেখা হয়। আমি এটাকে সঠিক মনে করি না। নো বল দেখাও কিন্তু আম্পায়ারিংয়ের অংশ। আমি বলছি না, সবগুলোই খুঁজে বের করতে হবে। কিন্তু যখন আপনি ছয় ইঞ্চি দূরে চলে যাবেন, তখন তো সেটা ডাকা উচিত।

Related Post