খারাপ ছাত্র ছিলাম বলে হেডমাস্টার স্কুল থেকে বের করে দিয়েছিল। গতকাল সে হেডমাস্টার কে আমার কাছেই আসতে হলো!হা হা হা…তিনি আমার দিকে তাকিয়ে,লজ্জিত ই ছিলেন।হয়ত তার লজ্জিত মাখানো মুখে,ক্ষমার ভঙি ছিল।তার কাজটা করাতে আমি কোনো টাকা নেইনি;যাতে তিনি বুঝেন সে অপমানের উত্তর।

অবশ্য সেদিন বের করে না দিলে,আজ এই অবধি আসতেও পারতাম না।
আজ এমন এক পর্যায় আছি আমি,সবাই কে আমার কাছে কোনো না কোনো ভাবে আসতে হয়।সবাই তাদের স্বীয় কাজের মাধ্যমে,আমাকে টাকাও দিয়ে যায়।
সেদিন এক পুলিশ এসেছিল।তাকেও টাকা ছাড়া ছাড়েনি।প্রথমত টাকা দিতে চাইনি,পরে আমি চেয়ার থেকে উঠে জোর করে টাকা আদায় করেছি।এখন,আমার সে অধিকার হয়েছে।এখন শিখেছি কিভাবে টাকা আদায় করতে হয়? বড় বড় অফিসাররাও আজ আমার ছায়াতলে।ভাবতে ই ভালো লাগে।কিন্তু,অথচ যখন টাকার অভাবে এসএসসি পরীক্ষায় হাত পেতেছি এসব নাম করা বড়লোকদের কাছে, কেউ সেদিন,সে খালি হাত কে ভরিয়ে দেয়নি, ফিরে তাকায় নি অবধি। অবশ্য তাকালে,আজকের পর্যায়ে আসতে পারতাম না।হা হা হা… প্রতিটা প্রতিষ্ঠিত শিক্ষিত মানুষের উচিৎ ;একজন করে শিক্ষিত মানুষ তৈরি করা,লালন করা।অথচ কেউ করেনা,যদি করতো সেদিন টাকার অভাবে আমাকে কাঁদতে হতোনা,রাস্তায় দাঁড়াতে হতো না। অবশ্য করলে আজকের পর্যায়ে আসতেও পারতাম না।তাই ধন্যবাদ তাদের।
ভাবতেই ভালো লাগে,যে মেয়েটি আমাকে প্রত্যাখান করেছিল,টাকা ছিল না বলে;সে মেয়ের হাজবেন্ডও গতকাল এসেছিল।হা হা হা…অন্য রকম ভাল লেগেছিল আমার কাছে।লজ্জায় সে বাইরে ছিল,আমার অফিসে ঢুকতেও পারে নি। অবশ্য সেদিন টাকার জন্য আমাকে রিজেক্ট না করলে,আজকের প্রজিশনে আসতে পারতাম না আমি।হা হা হা…তবে,তার লাঞ্চনায় একটা কথা বুঝেছি,”ভালো ছেলের জন্য মেয়েরা তাদের হাত ধরে না,মেয়েরা হাত ধরে শুধু টাকার।শুধু টাকার! যেদিন থেকে বেকার হয়ে ঘুরেছি রাস্তায়,একটা কাজের আশায়,সেদিন সবার ধিক্কার পেয়েছি। অবশ্য ধিক্কার না পেলে আজ এই অবধি আসতেও পারতাম না।হা হা হা… আজ আমার অফিসে এসে সবাই সিরিয়াল দেয়,ওয়েট করে একবার দরজা খোলার অপেক্ষায়। তাদের ঘাম দেখতে ভীষণ ভাল লাগে আমার। অবশ্য সেদিন তারা আমার ঘাম না ঝড়ালে,আজ এই আসনে অধিষ্ঠিত হতাম না আমি।সমাজের এই সকল ঘৃণ্যতম শ্রেণী থেকে টাকা আদায় করতে পারতাম না আমি।হা হা হা… জানেন ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়েছিলাম।কেউ কাছে এসে বলেনি,বাবা মারা গিয়েছে তো কি হয়েছে!আমরাও যে তোমার বাবা,আমরাও যে তোমার অভিবাবক।অবশ্য বললে,আজ এই অবধি আসতে পারতাম না।হা হা হা…

আজ সমাজের সে সকলকে ধন্যবাদ,যারা আমাকে এই চেয়ারে বসিয়েছেন।আশা করি আমার মতো আরো অনেকেই হবে “পাবলিক টয়লেটের ক্যাশিয়ার.

Related Post