শিরোনাম শুনতে যতই বিচিত্র মনে হোক না কেন, দূরে কোথাও বেড়াতে যাবার সময়ে অবশ্যই গ্যাসের চুলার ছবি তুলে রাখা উচিৎ। কদিন বাদেই কোরবানির ঈদ, অনেকেই ঈদ করতে গ্রামের বাড়িতে যাবেন। তাই না? তাহলে আমি বলবো, যাত্রার আগে অবশ্যই বাড়ির গ্যাসের চুলাটির একটি ছবি তুলে নিয়ে যাবেন। কেন? ব্যাখ্যা করে বলি আসুন। আমাদের ঘরের সবচাইতে স্পর্শকাতর বিষয় হচ্ছে গ্যাস ও ইলেক্ট্রিসিটির লাইন। সামান্য অসাবধানতায় ভয়ংকর দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে যখন-তখন। কোথাও বেড়াতে গেলে আমরা গ্যাসের চাবি আর বাড়ির সুইচগুলো সকলেই দেখে দেখে বন্ধ করি। কিন্তু তবুও, বেড়াতে যাবার পর কি চিন্তা হয় না? বিশেষ করে তাড়াহুড়ায় বের হবার পর অনেকেই এটা ভেবে ভেবে হয়রান হতে থাকেন যে গ্যাস বন্ধ করেছেন তো! এই সমস্যার সমাধান খুবই সহজ। আর সেটা হচ্ছে, কোথাও যাবার আগে গ্যাসের চুলোর একটা ছবি তুলে রাখুন। কেবল গ্যাসের চুলোই নয়, বাড়ির দরজা-জানালা, সদর দরজা, সুইচ বোর্ড ইত্যাদিরও ছবি তুলে রাখতে পারেন। এমনকি প্রতিটি কামরার ছবি তুলেও রাখতে পারেন। আর সেটা অবশ্যই উচিৎ একটি কাজ। কেন? কারণগুলোই ব্যাখ্যা করি আসুন। -সবকিছুর ছবি আপনার কাছে তোলা থাকলে বেড়াতে গিয়ে চিন্তায় অস্থির হতে হবে না। বাড়িতে কোন গড়বড় আছে কিনা, কিছু খুলে রেখে এসেছেন কিনা, সবকিছু ঠিকমত বন্ধ করেছেন কিনা এসব নিয়ে শতভাগ নিশ্চিত থাকতে পারবেন। -দ্বিতীয়ত, আজকাল কাউকে বিশ্বাস নেই। অনেক বাড়িতেই দারোয়ানেরা অসৎ ও খারাপ উদ্দেশ্যের মানুষ। দেখা যায় বাড়িতে কেউ না থাকলে তারা ডুপ্লিকেট চাবি দিয়ে দরজা খুলে ও বান্ধবীদের নিয়ে এসে অসামাজিক কাজকর্ম করে। আমার নিজের সাথেই এটা ঘটেছিল। ছবি তোলা থাকলে আপনি এসে মিলিয়ে নিতে পারবেন যে সবকিছু আগের মতই আছে কিনা, নাকি কেউ অনুপ্রবেশ করেছিল। -বাড়িতে চুরি-চামারি কিছু হয়েছে কিনা, সেটাও ছবি থাকলে মিলিয়ে দেখা সহজ। -ধরুন আপনি গ্যাসের চুলা বন্ধ ভেবে চলে গেছে, কিন্তু কোনরকমে পুরোটা বন্ধ হয়নি, সামান্য করে গ্যাস লিক করছিল। এই সামান্য গ্যাস বন্ধ বাড়িতে জমে জমে আপনি ফিরতে ফিরতে কিন্তু বিশাল ব্যাপার হয়ে যাবে। আর তখন একটু আগুন মাত্রই সবকিছু বিস্ফোরিত হবে। ছবি তোলা থাকলে আপনি খুব ভালমত দেখে নিয়ে তবেই চুলায় হাত দিতে পারবেন।

-সাবধানতার পরেও বাড়িতে যদি কোন রকমের চুরি-ডাকাতি বা আগুন লাগার ঘটনা ঘটেই যায়, তখন এই ছবিগুলো হবে আপনার পরম বন্ধু। পুলিশ বা ইন্সুরেন্স কোম্পানিকে আপনি হুবহু দেখাতে পারবেন যে বের হয়ে যাবার আগে ঘরদোর কেমন ছিল বা বাড়িতে কী কী ছিল। একটা দুর্ঘটনা ঘটে যাবার আগেই প্রতিরোধ করা জরুরী। বিপদ ঘটে যাবার পর হা-হুতাশ করে লাভ নেই। বরং সবসময়েই সাবধান থাকুন।

Related Post

Spread the love
  • 100
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    100
    Shares