এই পৃথিবীতে অজানা ও আশ্চর্যকর কত ঘটনায় না ঘটে চলেছে তার ক্ষুদ্র কিছু খবর আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়ে থাকে সেরকমই একটা ঘটনার কথা শুনলে আপনি হতবাক হবেন কত কষ্ট করে জীবনধারণ করতে হয় সে বিষয়ে অবগত হবেন।এই ঘটনাটি ঘটেছে কলম্বিয়ার মারিয়া গার্সিয়া দেশে।ই দেশে এক দম্পতি এমনভাবে জীবন কাটিয়েছেন তা দেখলে অবাক হবেন আর মনে হবে এটাও কীভাবে সম্ভব ।এটি এমন একটি দেশ যেখানে প্রায় সকলে নেশা ও ড্রাগ নিয়ে থাকেন আর তাতেই বুদ হয়ে থাকেন।দুর্নীতির কবলে পড়ে অনেকের জীবন ব্যাতিব্যস্ত হয়েছে খুব সরলভাবে এ দেশের মানুষেরা জীবন এগিয়ে নিয়ে পারেননা কারন প্রতিমুহুর্তে গ্রাস করে দুর্নীতি ।

এমনই এক চাঞ্চল্যকর শান্তিহীন পরিবেশে দেখা হয় এক যুবক ও যুবতীর-মরিয়া ও মিগুয়েল দেখা হয়।এরাও প্রায় সকলের মতো নেশায় বুঁদ হয়ে থাকত।কিন্তু কথায় আছে ভালোবাসা হল পরশপাথর সেই স্পর্শে সকল অন্ধকার ঘুচে যায়,সকল খারাপ ভালো হয়ে ওঠে,রুক্ষতা দূর হয় এদের মধ্যেও তাই হয়েছে ,ভালোবাসার স্পর্শ সকল খারাপ অভ্যাস দূরীভূত হয়ে রঙিন তুলির আচড় কেটেছে তাদের জীবনে।পরস্পর পরস্পরের পরিপূরক হয়ে উঠেছে।

আর তারা সংসার গড়েছেন ম্যানহোলে ভিতরে আর দিব্যি সংসার করছেন তারা ।সেখানে টিভি,খাট,আলমারি দিয়ে ছোট্ট সংসার পেতেছেন।রান্নার ব্যাবস্থাও এখানে আছে আর এভাবেই তারা একে অপরের হাত ধরে কাটিয়ে দিয়েছেন 22 টা বছর।আর এই নিয়ে কোনো আক্ষেপ নেই কারন সকলের জীবনেই যে সুখের চেয়ে শান্তি অনেক প্রিয়,আর এই শান্তির সংসারে একে অপরের ভরসায় কাটিয়ে দিতে পারেন দুজনে।কথায় আছে ভালোবাসায় মানুষের জীবন পরিবর্তিত হয় আর ভালোবাসা আর বিশ্বাস থাকলে যেকোনো কিছুকে জয় করা যায় আর ভালোবাসা যে নিঃশেষ হয়ে যায়নি তার জলজ্যান্ত উদাহরন এই কাপেলরা,কীকরে ছোট জায়গাতেও নিজেদের ছোট্ট পরিসরে সংসার গড়ে তুলে আস্তে আস্তে নিজেদের সংসারকে সাজিয়েছেন।

Related Post

Spread the love
  • 221
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    221
    Shares