চাঁদপুর সদর উপজেলায় স্ত্রী ও দুই মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন মাইনুদ্দীন (২৬) নামে এক যুবক। আজ সোমবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার দেবপুর গ্রামের মৌলভীবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- মাইনুদ্দীনের স্ত্রী ফাতেমা (২৪) এবং তাদের দুই মেয়ে মিথিলা (৫) ও পিয়াম (১)। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চাঁদপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসিম উদ্দিন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে সোমবার ভোর রাতে সদর উপজেলার দেবপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেশীদের বরাত দিয়ে নাসিম উদ্দিন বলেন, আজ ভোর রাতে মাইনুদ্দীন ও ফাতেমার মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে মাইনুদ্দিন তার স্ত্রীকে বাড়ির পুকুরে চুবিয়ে হত্যা করে। এর পর সে ঘরে ঘুমিয়ে থাকা দুই সন্তানকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে মাইনুদ্দীন নিজেও ঘরের ভেতর গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। স্থানীয়রা জানান, মাইনুদ্দীন চট্টগ্রামের একটি বেকারিতে কাজ করতেন। গতকাল রোববার তিনি বাড়িতে আসেন। স্ত্রীর সঙ্গে তার প্রায়ই ঝগড়া হতো। পুলিশের একটি দলকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

গত রবিবার রাতে চাঁদপুর সদর উপজেলার দেবপুর এলাকায় শ্বশুর, শাশুড়ি এবং চাচা শ্বশুরকে দায়ী করে মাইনউদ্দিন, তাঁর স্ত্রী…

Posted by Gazi Nasir on Monday, December 17, 2018

Related Post