চীনে কেউ ব্যাবহার করতে পারবনে না আপেলর পণ্য।

বছরের শেষ সময়টা বেশ খারাপ যাচ্ছে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের। মূলত চীন সরকারের হয়ে নজরদারির অভিযোগে হুয়াওয়ের সরঞ্জাম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ডিসেম্বরের শুরুতে কানাডার পুলিশ প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝুকে আটক করে। তারপর চলে অনেক নাটকীয়তা। এরমাঝে বহির্বিশ্বে বেশ চাপে প্রতিষ্ঠানটি।

শত প্রতিকূল পরিস্থিতির এই সময়ে হুয়াওয়ের সমর্থনে চীনের প্রায় শতাধিক ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এগিয়ে এসেছে। তারা হুয়াওয়ের পণ্য কিনতে ভর্তুকি দেয়ার পাশাপাশি অ্যাপলসহ মার্কিন পণ্য বর্জনের আহ্বান জানাচ্ছে। এমনকি যারা এ নির্দেশনা মানবে না, তাদের শাস্তি বা জরিমানার হুমকিও দেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে প্রযুক্তি থেকে শুরু করে খাদ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানও রয়েছে। চীনের অনেক নাগরিকের কাছে এটা শুধু নিছক বাণিজ্যযুদ্ধ নয়, বরং জাতীয় স্বার্থ। এ কারণে তারা সাগ্রহে দেদার হুয়াওয়ের পণ্য কিনতে ভর্তুকি ও প্রণোদনা দিচ্ছেন। হুয়াওয়ের প্রতি চীনাদের সমর্থন প্রতিষ্ঠানটির পণ্য কেনা বা ভর্তুকি দেয়াতে সীমাবদ্ধ নেই। কিছু চীনা প্রতিষ্ঠান একধাপ এগিয়ে কর্মীদের অ্যাপলের পণ্য বর্জনের আহ্বান জানাচ্ছে।

নিক্কেইয়ের প্রতিবেদনে জানানো হয়, সম্প্রতি শেনঝেনের একটি যন্ত্রপাতি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কর্মীদের কাছ থেকে অ্যাপলের পণ্য বাজেয়াপ্ত করা এবং এতে বাধা দিলে ছাঁটাই করার হুমকি দিয়েছে। মেনপ্যাড নামের শেনঝেনের একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপলের পণ্য কেনার বিষয়ে কর্মীদের সতর্ক করেছে। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, যে ব্যক্তি অ্যাপলের পণ্য কিনবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কয়েকটি প্রতিষ্ঠান আইফোন কিনলে বোনাস বাতিল বা দামের সমপরিমাণ অর্থ জরিমানা হিসেবে কেটে নেয়ার কথা জানিয়েছে। চীন এবং হুয়াওয়ের দাবি, ওয়াংঝুকে বেআইনিভাবে আটক করা হয়েছিল এবং যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যে কোনো সত্যতা নেই।

(Visited 54 times, 1 visits today)

Related Post

You may also like...