পৌরুষ শুধু হাঁক-ডাকেই নয়। পুরুষ সে-ই, যে তার বংশধারাকে বইয়ে নিয়ে যেতে পারে— এই ধারণা আজ সেকেলে। কিন্তু কোন মানুষ না চান, সন্তানের পিতা হতে? বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সমীক্ষায় উঠে আসে, সন্তানহীনতার উৎস আসলে পুরষের শুক্রাণু-ঘাটতি। কীভাবে মোকাবিলা করে যায় এই সমস্যার, বেশ কিছু খাবারের সন্ধান দিল ‘মেডিক্যাল নিউজ টুডে’ নামে এক সংবাদমাধ্যম। বিভিন্ন দেশের প্রাচীন চিকিৎসা শাস্ত্রেও এই খাবারগুলির উল্লেখ মেলে।

ডার্ক চকোলেট- এতে এক ধরনের অ্যামাইনো অ্যাসিড রয়েছে, যা স্পার্ম কাউন্ট বৃদ্ধি করে। কলা- এতে রয়েছে ব্রোমেলেন নামে এক ধরনের এনজাইম, যা যৌন হরমোনগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করে। রসুন- এতে রয়েছে অ্যালিসিন নামে এক ধরনের কমপাউন্ড, যা পুরুষের প্রজনন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ভিটামিন বি৬ এবং সেলেনিয়মও রয়েছে, যা শুক্রাণু নষ্ট হতে দেয় না। অ্যাসপারাগাস- এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে, যা স্পার্মকে সুরক্ষা দেয়। জিনসেং- এক ধরনের ভেষজ, যা পুরুষের প্রজনন ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। ঝিনুক- পুরুষের শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বাড়াতে যে মিনারেল ও জিঙ্কের প্রয়োজন হয়, তা রয়েছে এই ওয়েস্টারে। বেদানা- শরীরে রক্ত বৃদ্ধির পাশাপাশি, এর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বাড়িয়ে তোলে স্পার্ম কাউন্টও। পালং শাক- গাঢ় সবুজ সবজি, যেমন পালং শাক। খুবই উপকার স্পার্ম কাউন্ট বাড়ানোর জন্য। আখরোট- আখরোটে রয়েছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা স্পার্ম কাউন্ট বাড়াতে সাহায্য করে।

Related Post