ধূমপানকে নিরুৎসাহিত করতে ‘পিয়ালা ইনকর্পোরেটেড’ নামে জাপানের বেসরকারি একটি মার্কেটিং কোম্পানি সম্প্রতি তাদের কর্মীদের জন্য লোভনীয় অফারের ঘোষণা দিয়েছে।
ঘোষণা দিয়ে কোম্পানিটির প্রশাসন বলছে, যেসব কর্মী ধূমপান থেকে বিরত থাকবে বছরে তাদেরকে বেতনসহ অতিরিক্ত ছয়দিন ছুটি দেয়া হবে। পিয়ালা ইনকর্পোরেটেড’র এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়ার পেছনে অবশ্য একটা কারণও রয়েছে। কারণ অনুসন্ধানে জানা যায়, কিছুদিন আগে কোম্পানিটির একজন অধূমপায়ী কর্মী কর্তৃপক্ষকে জানান, ধূমপায়ী ব্যক্তিরা কাজের মধ্যে বারবার বিরতি নেন। এতে তাদের কাজ ঠিক মতো হয় না।

ওই কর্মী জানান, তাদের অফিসটি ৩০ তলায় অবস্থিত। আর ধূমপায়ীদের জন্য আলাদা জায়গা রাখা হয়েছে বেসমেন্টে। সে কারণে কেউ ধূমপান করতে চাইলে বারবার তাকে ৩০ তলা থেকে একদম নিচে নামতে হয়। সেক্ষেত্রে অনেকটা সময়ের অপচয় হয়। এ প্রেক্ষিতে অধূমপায়ী ওই কর্মীর অভিযোগটি আমলে নেয় কোম্পানিটির ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। কেননা তাদের প্রায় ৩৫ ভাগ কর্মী ধূমপায়ী। ফলে অনেক ভেবেচিন্তেই ধূমপানকে নিরুৎসাহিত করতে অতিরিক্ত ছুটির সিদ্ধান্ত নেয় পিয়ালা ইনকর্পোরেটেড। আর এই সিদ্ধান্তে তাৎক্ষণিক ফলও পেয়েছে তারা। এতে ছুটির ঘোষণার পরপরই ৪জন কর্মী ধূমপান ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

জানা গেছে, অন্যান্য উন্নত দেশের তুলনায় জাপানে দৈনিক কর্মঘণ্টা অনেক বেশি। এতে পরিবারের সঙ্গে কিংবা ব্যক্তিগতভাবে সময় কাটানোর সুযোগ তারা খুবই কম পান। দেখা গেছে, বেশিরভাগ কর্মীই নিয়মিত ১২ ঘণ্টা কাজ করেন। সেক্ষেত্রে পিয়ালি কোম্পানির অতিরিক্ত ছুটির এই প্রস্তাব নিঃসন্দেহে লোভনীয় একটি অফার। এদিকে দেশটিতে ধূমপান খুব পরিচিত একটি বিষয়। সমীক্ষায় দেখা যায়, দেশের প্রায় ১৮ শতাংশ লোক ধূমপান করতে পছন্দ করেন। এ কারণে দেশটিতে প্রতি বছর ধূমপানজনিত রোগে মারা যায় প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার মানুষ। এরইমধ্যে জাপানে জনসমক্ষে ধূমপান বন্ধ করাসহ একে নিরুৎসাহিত করতে দেশটির সরকার নানা উদ্যোগও নিয়েছে। এ প্রসঙ্গে পিয়ালা ইনকর্পোরেটেড’র এই অভিনব পথটি বেছে নিতে পারে জাপান সরকার।

Related Post

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •