দুই বছর আগে মারা যাওয়া ব্যক্তির হাত কবরের ওপর

দুই বছর আগে মারা যাওয়া- টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে আবারও কবর থেকে দুটি কঙ্কাল চুরির ঘটনা ঘটেছে। শনিবার রাতে মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের গোড়াই খামারপাড়া গ্রামের তমছের আলীর পারিবারিক কবরস্থান থেকে এসব কঙ্কাল চুরি হয়। স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাতে কে বা কারা খামারপাড়া গ্রামের মৃত তমছের আলীর পারিবারিক কবরস্থান থেকে তমছের আলী ও ছেলে ফজল মিয়ার স্ত্রী আল্লাদি বেগমের কবর খুঁড়ে কঙ্কাল চুরি করে নিয়ে যায়। রোববার সকালে এলাকাবাসী কবরের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় কবরের ওপর একটি বিচ্ছিন্ন হাত পড়ে থাকতে দেখে। পরে কবরের কাছে গিয়ে দেখতে পায় দুটি কবরের মরদেহ উধাও। প্রায় দুই বছর আগে তমছের আলী ও পুত্রবধূ আল্লাদি বেগম মারা গেলে তাদের ওই পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। একই গ্রামের বাসিন্দা স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম আজাদ কবর খুঁড়ে দুটি কঙ্কাল চুরি হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ১০ ডিসেম্বর রাতে একই উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের শুভূল্যা সামাজিক কবরস্থানের কবর খুঁড়ে তিনটি কঙ্কাল চুরি হয়। মির্জাপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মোশারফ হোসেন বলেন, গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা দুটি কবর খুঁড়ে কঙ্কাল চুরি করে নিয়ে গেছে। ডিমের গায়ে ভেসে উঠলো আল্লাহ ও রাসুলের নাম! ডিমের গায়ে ভেসে উঠেছে আল্লাহ ও রাসুলের নাম। রবিবার সকালে পাবনার আটঘরিয়া পৌর এলাকার জালালের ঢালু নামক গ্রামের মো. জিল্লুর রহমানের বাড়িতে এমন একটি হাঁসের ডিমের দেখা মিলেছে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা ভিড় করেন আল্লাহ লেখা ডিমটি দেখার জন্য। জানা গেছে, মো: জয়নাল হোসেনের ছেলে জিল্লুর রহমান তার বাড়িতে ৭টি হাঁস পালন করে। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি হাঁস ডিম দেয়। হঠাৎ করে রবিবার সকালে জিল্লুর রহমান হাঁসের ঘর থেকে ডিম সংগ্রহ করতে গেলে একটি হাঁসের ডিমে আরবিতে স্পষ্ট আল্লাহ রাসুলের নাম লেখা দেখতে পায়। এর পরই তিনি স্থানীয় মাদ্রাসায় একজন হুজুরকে দেখালে তিনি আল্লাহ রাসুলের নাম লেখা রয়েছে মর্মে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।এরপরই এলাকায় জানাজানি হলে উৎসুব জনতা ডিমটি দেখার জন্য তার বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে। বিয়য়টি নিয়ে এলাকায় দারুণ চাঞ্চল্যের সৃষ্ঠি হয়েছে।

## যে দোয়া পড়লে মৃত্যুর আযাব হবে পিপড়ার কামড়ের সমান!: একজন মুসলমানের জীবন মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সুন্দরভাবে অতিবাহিত করার জন্য অনেক দোয়া রয়েছে। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- মহান ও পরাক্রমশালী আল্লাহ্ আত্নাকে বলেন, “বেরোও।” সে বলে, “না আমি স্বেচ্ছায় বেরোব না।” আল্লাহ বলেন, “অনিচ্ছায় হলেও, বেরোও।” রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- যখন মু’মিন-বিশ্বাসী বান্দার রূহ বেরোয় তখন ওর সাথে দু’জন ফেরেশতা দেখা (অর্থাৎ তা গ্রহণ) করে এবং তা নিয়ে দু’জনই ঊর্ধ্বে আরোহন করে। তারপর এর সুগন্ধির কথা উল্লেখ করা হয়। আসমানবাসিগণ বলে, “পৃথিবী থেকে একটি পবিত্র রূহের আগমন ঘটেছে। হে রূহ! তোমার প্রতি এবং যে দেহ তুমি আবাদ করছিলে, তার প্রতি আল্লাহর শান্তি বর্ষিত হোক।”

অনন্তর একজন ফেরেশতা তাকে নিয়ে তার প্রতিপালকের কাছে চলে যায়। তারপর তিনি বলেন, “তাকে শেষ সময়ের (অর্থাৎ কেয়ামত না হওয়া পর্যন্ত) জন্য নিয়ে যাও।” পক্ষান্তরে কাফিরের আত্না যখন বেরোয়, তখন এর দুর্গন্ধ ও অপবিত্রতার কথা উল্লেখ করা হয়। আসমানবাসিগণ বলে, “পৃথিবী থেকে একটি অপবিত্র রূহের আগমণ ঘটেছে।” আর এর সম্বন্ধে বলা হয়-“শেষ সময় পর্যন্ত রাখবার জন্য তাকে নিয়ে যাও।” হযরত আজরাঈল (আ) যখন জান কবজ করতে আসবেন, তখন মৃত্যু পূর্ব মুহুর্তে কষ্ট হবেই।

তবে মহান আল্লাহ তায়ালার মমিন বান্দারা সেই কষ্টটা কম পেয়ে থাকেন। আল্লাহ পাক বলছেন, আল কোরআনে বর্ণিত ছোট্ট এই দোয়াটি পড়লে মৃত্যু আযাব হালকা হয়ে যাবে। দোয়াটিকে আমরা সবাই ‘আয়াতুল করসি’ বলেই জানি। দোয়াটি নিম্নরূপঃ – আয়াতুল কুরসী
উচ্চারণঃ আল্লাহু লাইলাহা ইল্লাহুওয়াল হাইয়্যুল ক্বইউম, লাতা’খুযুহু সিনাতুওঁ ওয়ালা নাওম, লাহু মাফিস্* সামাওয়াতি ওয়ামা ফিল আরয। মানযাল্লাযি ইয়াশ্*ফাউ ইন্*দাহু ইল্লা বিইযনিহ। ইয়ালামু মা বাইনা আইদীহিম ওয়ামা খালফাহুম, ওয়ালা ইউহীতূনা বিশাইয়িম মিন ইলমিহি ইল্লা বিমাশাআ ওয়াসিয়া কুরসিয়্যুহুস সামাওয়াতি ওয়াল আরযা, ওয়ালা ইয়াউদুহু হিফযুহুমা ওয়াহুওয়াল আলিয়্যুল আযীম। (সূরা বাকারঃ ২৫৫)

আয়াতুল কুরসি পড়ার ফজিলত: ১. আয়াতুল কুরসি পড়ে বাড়ি থেকে বের হলে ৭০ হাজার ফেরেস্তা চারদিক থেকে তাকে রক্ষা করে। ২. আয়াতুল কুরসি পড়ে বাড়ি ঢুকলে বাড়িতে দারিদ্রতা প্রবেশ করতে পারেনা। ৩. আয়াতুল কুরসি পড়ে ঘুমালে সারারাত একজন ফেরেস্তা তাকে পাহারা দেন। ৪. ফরজ নামাযের পর আয়াতুল কুরসি পড়লে তার আর বেহেস্তের মধ্য একটি জিনিসেরই দূরত্ব থাকে; তা হলো মৃত্য। এবং মৃত্যু আযাব এতই হালকা হয়; যেন একটি পিপড়ার কামড়ের সমান। ৫. ওজুর পর আয়াতুল কুরসি পড়লে আল্লাহর নিকট ৭০ গুন মর্যাদা বৃদ্ধি লাভ করে। (সহীহ হাদিস)

(Visited 677 times, 4 visits today)

Related Post

You may also like...